৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

চোখ রাঙ্গাচ্ছে রেমাল, মোকাবিলায় প্রস্তুত প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিনিধি : ঘোষণা ছিল আগের থেকে, রেমেলের প্রভাব রবিবার সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা থাকার পর বিকাল হতেই শুরু হল বৃষ্টি। রেমেলের মোকাবিলায় সর্বতোভাবে তৈরী পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

জেলা বিপর্যয় ব্যবস্থাপন আধিকারিক প্রতীক ব্যানার্জ্জী জানিয়েছেন, রেমেল মোকাবিলায় প্রতিটি মহকুমা এবং পুরসভাগুলিতে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। এছাড়াও জেলাস্তরে একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে ,কন্ট্রোল রুম নং- ৮০০১১৯২৭৪০ এবং ০৩৪২-২৬৬৫০৯২। তিনি জানিয়েছেন, চিফ সেক্রেটারির নির্দেশে জেলাতে ইন্ট্রিগেটেড কন্ট্রোলরুম ২০ তারিখ থেকে খোলা হয়েছে। এছাড়াও সমস্ত মহকুমা, ব্লক, পৌরসভায়ও ২৪ ঘণ্টা কন্ট্রোলরুম খোলা রয়েছে।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

চিফ সেক্রেটারির নির্দেশে কালনা ও কাটোয়ায় ফেরি সার্ভিস বন্ধ রয়েছে। এছাড়া জেলা এবং সমস্ত মহকুমা ও ব্লকে গাছ কাটার যন্ত্র ও অন্যান্য সামগ্রী-সহ সেভিল ডিফেন্স টিম তৈরী রয়েছে। হেলথ, পুলিশ, ফায়ার, পি ডব্লিউ ডি, বিদ্যুৎ এবং ইরিগেশন বিভাগকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। এরা প্রত্যেকে আলাদাভাবেও কন্ট্রোলরুম চালু করেছে। প্রতীকবাবু জানিয়েছেন, হেড কোয়ার্টার ও কালনা-কাটোয়ায় নৌকা প্রস্তুত রয়েছে। ত্রিপল-সহ রিলিফ সামগ্রীও পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রস্তুত আছে। তিনি জানিয়েছেন, বিদ্যুত দপ্তরের উদ্যোগে গোটা জেলা জুড়ে মাইকিং করা হচ্ছে। প্রতীকবাবু জানিয়েছেন, রেমেলের ল্যাণ্ড ফলের সময়ের আগে থেকেই তাঁরা এদিন রাত্রি ৭ টা থেকে পুরোপুরি তৈরী থাকছেন।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

তিনি জানিয়েছেন, রবিবার সকাল থেকেই তাঁরা গোটা জেলা জুড়ে নজরদারী চালালেও যেহেতু অধিক রাতে ল্যাণ্ড ফল হবে তাই সন্ধ্যে নামতেই তাঁরা নজরদারী বাড়িয়ে দিচ্ছেন। তিনি জানিয়েছেন, জেলায় রেমেলের মোকাবিলায় জেলা পুলিশ সুপারের অধীনে একটি এস ডি আর এফ টিমকেও তৈরী রাখা হয়েছে।

Advertisement