১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

কাঁকসার শিক্ষককে বকেয়া পেনশন সুদসহ মেটানোর নির্দেশিকা হাইকোর্টের 

মোল্লা জসিমউদ্দিন : সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অমৃতা সিনহার এজলাসে পশ্চিম বর্ধমান জেলার কাঁকসা এলাকার এক শিক্ষকের প্রাপ্য সমস্ত পেনশন  মেটানোর নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

আদালত সুত্রে প্রকাশ,  রামপ্রসাদ মুখার্জি নামে পশ্চিম বর্ধমান জেলার  সাটকাহানিয়া বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের  সুদসমেত  বকেয়া পেনশন মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিলেন হাইকোর্ট এর বিচারপতি অমৃতা সিনহা। রাম প্রসাদ বাবু গত ১৯৮০ সালে  বর্ধমান জেলার বনগ্রাম প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা শুরু করে ছিলেন। ২০০৯  সালে  রামপ্রসাদ বাবু প্রধানশিক্ষক এর নিয়োগপত্র পেয়েছিলেন।গত ৩০.০৫.২০১২  তারিখে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা র কারণ এক ফৌজদারী মামলায় জড়িয়ে যান।গ্রেপ্তার হয়েছিলেন সেসময়। গত ৩০.০৭.২০১২ সালে  রামপ্রসাদ বাবু জামিন পেয়েছেন।  এরপর রামপ্রসাদ বাবুকে বিদ্যালয়ে  যোগদান করতে বাধা দেওয়া হয়। তখন  রামপ্রসাদ বাবু  কলকাতা হাইকোর্টে  রিট পিটিশন দাখিল করেন।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

হাইকোর্ট নির্দেশ থাকা সত্বেও  প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ এর সভাপতি কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি বলে অভিযোগ। রামপ্রসাদ বাবু তাঁর চাকরি জীবনে  অপশন পরিবর্তন এর জন্য অবেদন করেন। প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ তা  খারিজ করে থাকে।  রামপ্রদাস বাবু এই সিদ্ধান্ত কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে  অবসরপ্রাপ্ত ভাতা পাওয়ার ত জন্য হাইকোর্ট এর দারস্থ হন। রিট পিটিশন দাখিল করেন। আবেদনকারীর আইনজীবী   জয়তোষ  মজুমদার ও সৌগত মিত্র আদালতে সওয়াল চালান। প্রাথমিক শিক্ষা  সংসদ এর খারিজ এর সিদ্ধান্ত অবর্ণণীয় এবং রামপ্রসাদ বাবু কে অবসরপ্রাপ্ত সুদ সহ বকেয়া পেনশন মিটিয়ে দেওয়া হোক এই মর্মে সওয়াল চলে। গত সপ্তাহে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অমৃতা সিনহা সংসদ এর সিদ্ধান্ত কে খারিজ করে  ২৮  দিনের মধ্য সুদসহ বকেয়া পেনশন মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন। পশ্চিম বর্ধমান এর জেলার প্রাথমিক স্কুল পরিদর্শক কে এই নির্দেশ কার্যকর করতে বলা হয়েছে।

Advertisement