৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

সাংবাদিকদের পেনশনের দাবিতে আই জে এ র ডেপুটেশন

নূতন ভোরের প্রতিবেদন : ষাটোর্দ্ধ সকল সাংবাদিকদের পেনশনের জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর কাছে দাবিপত্র পাঠালো ইণ্ডিয়ান জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন এর পূর্ব বর্ধমান জেলা শাখা। আজ জেলা শাসক পূর্ণেন্দু কুমার মাজির অনুপস্থিতিতে অতিরিক্ত জেলা শাসক (সাধারণ) অমিয় কুমার দাস এর হাতে সেই দাবিপত্র তুলে দেওয়া হয়েছে। ইণ্ডিয়ান জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন এর পূর্ব বর্ধমান জেলা শাখার সভাপতি স্বপন মুখার্জী এবং সাধারণ সম্পাদক অরূপ লাহা ওই দাবিপত্রে উল্লেখ করেছেন,

আমরা জানি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বরাবরই সাংবাদিকদের প্রতি সহানুভূতিশীল। তাঁর সরকারই ২০১৭ সালে রাজ্যের ৬০ বছর অতিক্রান্ত সাংবাদিকদের জন্য একটি পেনশন প্রকল্প (আড়াই হাজার টাকা অনুদান) চালু করেছিল। কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যে, এই প্রকল্প চালু হলেও সীমিত সংখ্যক সাংবাদিকই এই সুবিধা পেয়েছেন। আবেদন করেও বঞ্চিত হচ্ছেন অনেক সাংবাদিক। সবচেয়ে বড় কথা ২০১৭ সালের পর অনেকের বয়স ষাট পেরিয়ে গেছে। কিন্তু সুনির্দিষ্ট গাইড লাইন না থাকায় পেনশনের জন্য আবেদন করার সুযোগ পাচ্ছেন না। এ বিষয়ে সরকারি পর্যায়ে বারবার দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলেও কোনো কাজ হয়নি। গ্রামাঞ্চলের অনেক সিনিয়র সাংবাদিক চরম আর্থিক সংকটে দিন কাটাচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে আমরা পশ্চিমবঙ্গের মমতাময়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। যাতে পেনশন প্রকল্প সত্যিই সাংবাদিকদের উপকারে আসে। আমরা যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আবেদন করছি যাতে ৬০ বছরের বেশি বয়সী সকল সাংবাদিককে পেনশন প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত করা যায়।

Advertisement

আমরা আশা করি আপনি দয়া করে আমাদের অনুরোধটি বিবেচনা করবেন এবং যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন।

এদিন মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে দাবিপত্র পেস করার প্রাক্কালে ইণ্ডিয়ান জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন এর জেলা কমিটির সভাপতি স্বপন মুখার্জী ও সাধারণ সম্পাদক অরূপ লাহা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সর্বভারতীয় নেতৃত্ব তারকনাথ রায়, জগন্নাথ ভৌমিক, রাজ্য কমিটির সদস্য আমিনুর রহমান, জয়ন্ত দত্ত, জেলা কমিটির সহসভাপতি রামনারায়ণ কুন্ডু, কার্যকরী কমিটির সদস্য দেবব্রত চ্যাটার্জী, শম্ভুলাল কর্মকার, পার্থ চৌধুরী, মিথিলেশ রায়, সুপ্রকাশ চৌধুরী, পিন্টু প্যাটেল সহ সংগঠনের সদস্য শ্যামাপ্রসাদ চৌধুরী, পাপাই সরকার এবং অন্যান্যরা।

Advertisement