১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

আবারো ভাঙ্গন পদ্ম শিবিরে

সঞ্জয় ঘটক :আবারো ভাঙ্গন বিজেপি শিবিরে ।উলেখ্য বেশ কিছুদিন আগে সারেঙ্গা ব্লকের বিক্রমপুর গ্রামপঞ্চায়েত বিজেপির হাত থেকে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসে চলে আসে,সংখ্যাগরিষ্ঠ নিরিখে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস বিক্রমপুর গ্রাম পঞ্চায়েত দখল করে । আজ সারেঙ্গা ব্লকের মন্ডল ২ সভাপতি রাজীব সেন বাঁকুড়া জেলার তৃণমূল সভাপতি দিব্যেন্দু সিংহ মহাপাত্রর হাত ধরে জেলার তৃণমূল ভবনে বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগদান করেন ।

এই দিন এই যোগদান অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন বাঁকুড়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি তথা রায়পুরের বিধায়ক মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু ,জেলার সভাপতি দিব্যেন্দু সিংহ মহাপাত্র,তালডাংরার বিধায়ক অরুপ চক্রবর্তী, প্রাক্তন বিধায়ক অরুপ খাঁ, সারেঙ্গা তৃণমূল ব্লক সভাপতি সুব্রত মিশ্র সহ স্থানীয় নেতা নেত্রী বৃন্দ ।রাজীব বাবু তৃণমূলে যোগদান করার পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন,পশ্চিম বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ও রাইপুর বিধান সভাসমেত সারেঙ্গা ব্লক তৃণমূল নেতৃত্ব বৃন্দের কার্যকলাপে সন্তুষ্ট হয়ে আজ আমি তৃণমূলে যোগদান করলাম । বিজেপিতে যখন ছিলাম তখন বিজেপির কিছু পদ্ধতিগত কিছু ভুল ছিল তার জন্য আমি মানুষের জন্য কাজ করতে পারছিলাম না,তাই আমি তৃণমূলে যোগদান করলাম । অন্য দিকে জেলার সভাপতি বলেন, রাজীব সেনের সাথে ষাটটি পরিবার বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল শিবিরে যোগদান করেন ,তিনি এও বলেন যে মমতা ব্যানার্জী যে ভাবে রাজ্য চালাচ্ছেন যে ভাবে সর্বস্তরের মানুষের কথা ভাবছেন সেই জায়গা থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই আমাদের দলে যোগদান করছেন ,তৃণমূল কংগ্রেসে অনেকেই আসতে চাইছেন,জেলাস্তরে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবো ।

Advertisement