২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Advertisement

টগর গাছে একটি জবাফুল ফোটাকে কেন্দ্র চাঞ্চল্য

কেউ বলেন অলৌকিক, তো কেউ বলেন মা মহিষমদ্দিনির কৃপা। রবিবার টগর গাছে একটি জবাফুল ফোটাকে কেন্দ্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে কালনার পূর্বস্থলীতে। সকাল হতেই স্থানীয় বাসিন্দারা ভিড় জমান কৈবত্যপাড়ায় শম্ভু ঘোষের বাড়িতে। তার বাড়ি্র টগর গাছে জবাফুল ফুটেছে। প্রতিবেশীরা প্রথমে জবাফুলটিকে দেখে বিশ্বাস করতে পারেননি। অনেকে ফুলটাকে ধরে নারাচারা করতে থাকেন। পরে বুঝতে পারেন, জবাফুলটা ওই টগরগাছেই ফুটেছে।

কেউ লাগিয়ে দেয়নি, বা কলম জোড়া হয়নি। বিষয়টি অলৌকিক বলেই স্থানীয়দের ধারনা। এরপর বেলা বাড়তে ভক্তদের ভিড় জমতে থাকে অলৌকিক জবাফুলটিকে দেখতে। তাদের অনেকেই দাবি করেন, কার্তিক পুজোয় কৈবত্যপাড়ায় জাগ্রত মহিষমর্দিনী দেবীর পুজো হয়। প্রচুর ভক্তরা মানত করেন। মানত পুরোনে শনিবার অয়ন প্রামানিক নামে একভক্ত ৫ হাজার জনকে বসিয়ে ভোগপ্রসাদ খাইয়েছেন।

Advertisement

বিকালে প্রতিমার বিসর্জন দেওয়া হয়েছিল। এদিন সকাল হতেই ওই মহিষমর্দিনীর প্রতিষ্ঠিত বেদি থেকে ঢিল ছোঁড়া দুরত্বে দেখা যায়, টগর ফুলগাছে একটি বড় আকৃতির জবাফুল ফুটে আছে। এরপর অলৌকিক ওই ফুলের কথা শুনে প্রচুর মানুষের ভিড় জমতে থাকে শম্ভু ঘোষের বাড়িতে।

অনেকে প্রনামও করেন। বেশ কয়েকজন ভক্ত বলেন, সবই মা মহিষমর্দিনীর মাহাত্ব। শীঘ্র আমরা দেবীমায়ের বেদিতে বিশেষ পুজো দেব। এবং সেদিনই হাজারো ভক্তকে ভোগপ্রসাদ খাওয়ার ব্যবস্থা করবো।

Advertisement