১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

নরমে গরমে বেলা শেষে প্রচারে দুই দল

নিজস্ব প্রতিনিধি : চতুর্থ দফার নির্বাচনের শেষপ্রচার ছিল আজকে। এই প্রচারে রীতিমতো হেভি ওয়েব দের নিয়ে শাসক বিরোধী দুই দলই বর্ধমানের ঝড় তুললেন।

পাশাপাশি বিজেপির মিছিল থেকে তৃণমূল সমর্থকদের ওপর হামলার অভিযোগ।

Advertisement

এদিন বিকেলে বর্ধমানের রাজবাড়ি উত্তর ফটক থেকে বর্ধমান দুর্গাপুরের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষের রোড শোতে যোগদান বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

এদিন দিলীপবাবু দুহাতে ফুল আর লজেন্স ছুঁড়ে দিয়েছেন দুপাশের মানুষের উদ্দেশ্যে। হাতে পদ্মফুল তুলে ধরে বিজেপির প্রতীককে চিনিয়ে দিয়েছেন সাধারণ মানুষকে। এমনকি এদিন দিলীপ ঘোষের এই রোড শোকে জায়গায় জায়গায় মোড়ের মাথায় দাঁড়িয়ে দেখলেন তৃণমূলের নেতারাও। মিছিল রাণীগঞ্জ বাজার মোড় এলাকায় আসতেই দিলীপবাবুর হুড খোলা গাড়িতে এসে ওঠেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। মিছিলের জোশ আরও বাড়ে। রাজবাড়ি উত্তরফটক থেকে বীরহাটা ঘড়ি মোড় পর্যন্ত এদিনের মিছিল ছিল। এদিকে, বর্ধমান শহরে যখন বিজেপির এই ঝড় সেই সময় এই কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী কীর্তি আজাদের সমর্থনে বর্ধমান ২ ব্লকের রামনগর ফুটবল মাঠ থেকে হাটগোবিন্দপুর কর্মতীর্থ (হাটতলা) পর্যন্ত অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় রোড শো করলেন।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

রোড শো শেষে হাটতলাতেই গাড়ির উপরে দাঁড়িয়ে পথসভা। তাঁর সঙ্গে ছিলেন প্রার্থী কীর্তি আজাদ সহ জেলা সভাপতি রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান উত্তরের তৃণমূল বিধায়ক নিশীথ কুমার মালিক প্রমুখরা। বলা বাহুল্য, এদিন বর্ধমান ২নং ব্লকের এই তৃণমূলের রোড শোতেও সেই একই ছবি। কাতারে কাতারে মানুষ রাস্তার দুপাশ থেকে রীতিমত উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন। যা দেখে এদিন খোদ অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ও বলেছেন, এদিন তিনি যে উচ্ছ্বাস দেখলেন সাধারণ মানুষের তাতে ৪ জুনের পর তাঁকে বিজয় মিছিল করতে আসতেই হবে। এই কেন্দ্রে তৃণমূলের জয় কেবল সময়ের অপেক্ষা। এদিন গাড়ির ওপরই পথসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে অভিষেক সন্দেশখালির প্রসঙ্গ তুলে ধরে তিনি আক্রমণ করেন। তিনি বলেন, ২ হাজার টাকার বিনিময়ে মহিলাদের সম্মান নিয়ে খেলেছে বিজেপি। এর জবাব ১৩ মে দিতে হবে।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

কেন্দ্রের বঞ্চনার প্রতিবাদে এদিন তিনি সরব হন। বাংলাকে ছোট করা হয়েছে গোটা দেশের সামনে। অভিষেক এদিন অমিত শাহকে কুখ্যাত কয়লা মাফিয়া জয়দেব খানের সাক্ষাত নিয়ে সরব হন। তিনি বলেন, কয়লা মাফিয়া জয়দেব খান অমিত শাহকে অণ্ডাল বিমানবন্দরে রিসিভ করতে গেছিলেন। বর্ধমান দুর্গাপুরের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষের পাশে বসে চা খাচ্ছেন। তিনি এদিন বলেন, এদের বিদায় আসন্ন। এদিন তিনি খুঁটি পুজো করে দিয়ে গেলেন, ১৩ মে আপনারা অষ্টমীর অঞ্জলী দেবেন আর ৪ জুন ওরা ভোকাট্টা হবে। অভিষেক বলেন, দিলীপবাবুরা এখন টাকা বিলি করছে আর বলছে আমাদের ভোট দেবেন। আপনাদের বলে যাচ্ছি, আপনারা টাকা নেবেন কিন্তু ভোটটা দেবেন জোড়া ফুলে।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

পাশাপাশিএদিন বিকালে সুকান্ত দিলীপের রোড শোকে ঘিরে রীতিমত পরিস্থিতি বেসামাল হয়ে ওঠে বর্ধমানের ঢলদীঘি এলাকায়। তৃণমূল বিজেপি কর্মীদের মধ্যে ধস্তাধস্তিতে উত্তেজনা ছড়ায়। মিছিল শেষে ফেরার পথে হাতে তৃণমূলের পতাকা থাকায় বিজেপির মিছিল থেকে হামলা করা হয় বলে অভিযোগ তৃণমূলের। এমনকি মহিলাদেরও রেওয়াত করা হয়নি বলে অভিযোগ।একজন মহিলার কোলে থাকা শিশুকে আছাড় মারার চেষ্টাও করে হয় বলে অভিযোগ করেছেন ওই মহিলা। ওই মহিলাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয় বলে তিনি জানিয়েছেন। অন্যদিকে, দিলীপ ঘোষের মিছিল লক্ষ্য করে জয়বাংলা স্লোগান দেওয়ার অভিযোগ করেছে বিজেপি। এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দেয়। উল্লেখ্য, এদিনই বর্ধমানের রায়নায় বর্ধমান পূর্বের বিজেপি প্রার্থী অসীম সরকারের সমর্থনে জনসভা করেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। নোটের উপর শেষ বেলার প্রচারে রীতিমতো ঝড় তুলেছে শাসক বিরোধী দুই দল এখন দেখার বিষয় আগামী ৪ তারিখ মানুষ কি বলছে।

Advertisement