১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

সৌদি আরবে কাজে গিয়ে মৃত্যু হল এক পরিযায়ী শ্রমিকের

সঞ্জয় মন্ডল:-পশ্চিমবঙ্গ থেকে সৌদি আরবে ট্রাক ড্রাইভারের কাজে গিয়ে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল এক পরিযায়ী শ্রমিকের। বেশ কয়েক বছর ধরেই সৌদি আরবে পাবলিক গাড়ি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

নাম মঘলেচুর সেখ,পিতা এজাজুল সেখ বাড়ি ভাতার ব্লকের বিজয়পুর পলসোনায়।বয়স ৫৪ বছর। মৃতের পরিবার সূত্রে জানা যায় তিনি পাবলিক সংস্থায় একটি লড়ি চালাতেন। গত ২১ মার্চ ২০২৪ পথ দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি,সৌদি আরবের পুলিশ প্রশাসন রক্তাক্ত জখম অবস্থায় সৌদি আরবের হাসপাতালে ভর্তি করেন,কিছু দিন চিকিৎসার পর গত ০১ এপ্রিল ২০২৪ তারিখে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপর মৃতদেহটি মর্গে পাঠানো হয়।পরিবারের লোকজন খবর পান গত ১১ এপ্রিল ২০২৪ তারিখে।পরিবারের লোকজন জানতে পারেন কোন এক সূত্র মারফত যে তার স্বামী পথ দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। ততদিনে অনেক দেরি হয়ে গেছে। পরিবারের অভিযোগ যে মালিকের অধীনে তিনি কাজ করতেন তাকে বারবার ফোন করা হলো তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

পরিবারের লোকজন চাইছেন যে ভারত সরকার এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকার ও স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন, সংবাদ মাধ্যমের সহযোগিতায় মৃতদেহটিকে পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হোক। মৃতের পরিবারকে যথপ্রযুক্ত সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন ভাতার বিধানসভা বিধায়ক মান গোবিন্দ অধিকারী এবং ভাতার থানার কর্মরত ওসি প্রসেনজিৎ দত্ত।এই ব্যক্তি ছিলেন এই পরিবারের একমাত্র উপার্জনশীল ব্যক্তি। মৃতের পরিবার দাবি করছেন গত পাঁচ বছর ধরে তিনি কোন টাকা পাঠাননি পরিবারকে তাই পরিবারটি বেশ অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে দিয়ে চলছেন। পরিবারে রয়েছেন দুই ছেলে এবং স্ত্রী। পরিযায়ী শ্রমিকের এই মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকাহত সমগ্র পরিবার ও এলাকাবাসী।

Advertisement