২১শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Advertisement

বিকাশ মিশ্রের ফের জামিন খারিজ সিবিআই এজলাসে, শুনানি ৫ জানুয়ারি 

মোল্লা জসিমউদ্দিন : এবারেও নিজেদের হেফাজতে পেলনা সিবিআই, তবে জামিনের আবেদন খারিজ হয়েছে ।বুধবার দুপুরে  কয়লা কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত বিকাশ মিশরের জামিনের আবেদন খারিজ করল আসানসোল বিশেষ আদালত। এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে আগামী  ৫ ই জানুয়ারি।  জেল হেফাজতে থাকতে হবে বিকাশ মিশ্রকে,যদিও একমুহূর্তে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে বিকাশ মিশ্র। বিকাশ মিশ্রের  আইনজীবী সোমনাথ চট্টোপাধ্যায় আদালত কে জানান, -‘ শারীরিক অসুস্থতার কারণে  হাজির হতে পারেননি অভিযুক্ত ‘।কয়লা কাণ্ডে আসানসোলের  সিবিআই এজলাসে  পরবর্তী শুনানি আগামী  ৫ জানুয়ারি ধার্য করা হয়েছে। সিবিআই আইনজীবী বিচারকের কাছে আবেদন জানিয়েছেন –  চিকিত্‍সকদের একটি দল গঠন করে বিকাশ মিশ্রকে তাড়াতাড়ি সুস্থ করে তোলা হোক। তারপর আদালতে তাঁকে হাজির করানো হোক। যদি তাই হয় তাদের তদন্তে অনেকটাই সুবিধা হবে’। বিচারক এই মর্মে এখনও কোনোও নির্দেশ জারি করেন নি বলে জানা গেছে ।দীর্ঘদিন ধরে কয়লা কাণ্ডে তদন্ত চালাচ্ছে ইডি ও সিবিআই।সম্প্রতি  বিকাশ কে গ্রেপ্তার করে থাকে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। এরপর তাঁকে তোলা হয়েছিল আসানসোলের সিবিআই আদালতে। তাঁকে জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়। ওইদিনই অসুস্থ হয়ে পড়েন বিকাশ মিশ্র। ওইদিন রাতেই তাঁকে বর্ধমান হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয় এসএসকেএমে। বর্তমানে সেখানেই চিকিত্‍সা চলছে তাঁর। যদিও এখনও পর্যন্ত চিকিত্‍সাধীন থাকায় বিকাশকে জেরা করতে পারছেন না সিবিআই তদন্তকারীরা।তবে ঠিক কী সমস্যার কারণে জেল থেকে তাঁকে ভরতি করা হয় হাসপাতালে? কেমন আছেন কয়লা পাচার কাণ্ডে ধৃত বিকাশ? তাঁর শারীরিক অবস্থা ঠিক কী? এহেন একাধিক প্রশ্নের উত্তর চেয়ে হাসপাতাল ও সংশোধনাগারে চিঠি পাঠিয়েছে সিবিআই।  হাসপাতাল সুত্রে প্রকাশ, লিভার জনিত রোগ রয়েছে। বুধবার আসানসোল এর সিবিআই এজলাসে  মামলার শুনানি চলাকালীন বিকাশের শারীরিক অবস্থার যাবতীয় তথ্য আদালতে জানায় সিবিআই।প্রসঙ্গত, গত মাসে কয়লা কাণ্ডে বড়সড় পদক্ষেপ করে ইডি-ও। অনুপ মাজি ওরফে লালা, বিনয় ও বিকাশ মিশ্রের প্রায় সাড়ে ৯ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে এই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তার মধ্যে রয়েছে বাড়ি, গাড়ি ও জমি। চলতি বছরের জানুয়ারীতে কয়লা ও গরু পাচার  কাণ্ডের কিনারায় সিবিআইয়ের তত্‍পরতা দেখে মূল অভিযুক্ত ব্যবসায়ী বিনয় মিশ্র বাংলা ছেড়ে মুম্বই হয়ে পালিয়ে যান দুবাইয়ে। এরপর একাধিকবার ভিনদেশের পাসপোর্ট ব্যবহার করেই গা ঢাকা দেন তিনি।এই মুহুর্তে প্রশান্ত মহাসাগরীয় এক দ্বীপে রয়েছেন বিনয় মিশ্র।তবে বিকাশ মিশ্র কে নিজেদের হেফাজতে পেলে কয়লা ও গরু পাচার মামলায় হাওলা টাকার ব্যবহার নিয়ে অনেক তথ্য পেতে পারে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থারা বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Advertisement