৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

দায়িত্ব নেওয়ার প্রথম দিনেই ইস্তফা সুইডেনের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রীর

দায়িত্ব নেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিতে হল ম্যাগডালিনা অ্যান্ডারসনকে। সুইডেনের ইতিহাসে তিনি দেশটির প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী। মতবিরোধের জেরে জোট শরিক সরে দাঁড়ানোয় বুধবার বাজেট পাশ করাতে ব্যর্থ হন ম্যাগডালিনা। এরপরই স্পিকারের কাছে তিনি ইস্তফা দেন। ইস্তফা পত্রে সুইডেনের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী লেখেন, ‘একক সংখ্যা গরিষ্ঠতা পেয়ে আমি আবার প্রধানমন্ত্রী হব।’

পদত্যাগের পর সংবাদিক বৈঠকে ম্যাগডালিনা অ্যান্ডারসন বলেন, ‘আমার জন্য এটা সম্মানের। তবে আমি এমন কোনও সরকারকে নেতৃত্ব দিতে চাই না যার বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার মতো কারণ থাকতে পারে।’

Advertisement

সুইডিশ মহিলারা ভোটাধিকার পাওয়ার ১০০ বছর পর, ৫৪ বছর বয়সি সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট নেতার বিজয়ে সাংসদের একাংশ স্ট্যান্ডিং ওভেশন দেন। সংসদে ভোটাভুটির ভিত্তিতেই তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। একই সঙ্গে তিনি দেশের অর্থমন্ত্রীও।

প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য সুইডেনের ৩৪৯ আসনের সংসদে অ্যান্ডারসনের পক্ষে ভোট দেন ১১৭ জন, ভোটদান থেকে বিরত ছিলেন ৫৭ জন, বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন ১৭৪ জন এবং একজন অনুপস্থিত ছিলেন। সুইডেনের সংবিধান অনুযায়ী, সংসদে একজন প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীর জন্য সংখ্যাগরিষ্ঠ সাংসদের সমর্থন দরকার হয় না। তবে বিপক্ষে ভোট ১৭৫ জনের কম থাকতে হয়। সেই কারণেই তাঁকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করা হয়েছিল। কিন্তু দায়িত্ব নিয়ে প্রথম দিনেই তিনি বাজেট পাশ করাতে ব্যর্থ হন। তাই এই ইস্তফা।

Advertisement