১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

এবার চাপ মার্জিন বারানোর আর কোনো চাপ নেই, মনোনয়ন জমা দিয়ে বললেন, কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়

রাকেশ চক্রবর্তী : শুক্রবার উত্তরপাড়া থেকে মেগা র‍্যালি করে মনোনয়ন জমা দেন শ্রীরামপুরের তৃনমূলের প্রার্থী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

প্রথমে দলীয় কর্মীদের নিয়ে বালি খাল থেকে শুরু করেন মেগা র‍্যালী। সেখান থেকে কোন্নগর শকুন্তলা কালী মন্দিরে এসে পুজো দেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা জাঙ্গিপাড়ার বিধায়ক স্নেহাশিস চক্রবর্তী, চাঁপদানির বিধায়ক তথা তৃণমূল কংগ্রেসের হুগলি শ্রীরামপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি অরিন্দম গুইন,তার নির্বাচনী এজেন্ট গিরিধারী সাহা।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

শকুন্তলা কালিবাড়ির পর পুজো দেন মাহেশ জগন্নাথ মন্দিরে। সেখানে পুজো দিয়ে আবার র‍্যালি করে আসেন চাঁপদানি পর্যন্ত। এরপর হুগলি মোড় ভূমি রাজস্ব দপ্তরে অতিরিক্ত জেলা শাসক কুহুক ভূষণ এর কাছে মনোনয়ন জমা দেন কল্যাণ।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

মনোনয়ন জমা দিয়ে কল্যাণ বলেন,দেড় লক্ষেরও বেশি ভোটে জিতব আগেই বলেছি। মানুষ চাইছে সেই ব্যবধান যেন দুই লক্ষের বেশি হয়। এবারের চাপটা মার্জিন বাড়ানোর। আমি পনেরো বছরের সাংসদ। পনেরো বছর ধরে রয়েছি মানুষের সাথে। এই এলাকার জন্য অনেক কাজ করেছি। আমাদের সংগঠন আছে।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

আমাদের বিধায়ক থেকে শুরু করে সকলেই কাজ করেন। ২০০৯ সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যে ক্রেজ ছিল তা আবার ২০২৪ সালে রয়েছে। মানুষ মমতার সাথে রয়েছে। সব বিধানসভা থেকেই ব্যবধান বাড়বে।শ্রীরামপুর লোকসভা মিশ্র মানুষের বাস। বিজেপি বিভাজনের রাজনীতি করে। কিন্তু মানুষ এখন সেটা গ্রহণ করছে না।।।

Advertisement