৯ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Advertisement

জঙ্গলমহল মাতলো দোল উৎসবে

সঞ্জয় ঘটক, সারেঙ্গা :বাঁকুড়া জেলার জঙ্গল মহল সারেঙ্গায় ব্লকে সারেঙ্গায় দোল উৎসবের আনন্দে মাতলো বসন্ত উৎসবে । এই বসন্ত কালের দিনটির জন্য অপেক্ষা করে থাকে প্রতিটি ভারতবাসি ,আজ তার অন্যথা হলোনা ।

করোনার জন্য গত দু বছর মানুষ কার্যত গৃহবন্দি হয়ে ছিলন,করোনার আতঙ্ক কাটতেই এই বসন্ত উৎসব ,দোল উৎসবে মাতলো অপামোর জন সাধারণ । কচি-কাচা থেকে ছাত্র-ছাত্রী প্রত্যেকে মাতলো দোল উৎসব,বসন্ত উৎসবে ।আজকের দিনটি এলেই রবীন্দ্র সংগীতের গানটি প্রত্যেকের মুখে মুখে সোনাযায় নীল দিগন্তে ওই ফুলের আগুন লাগলো বসন্তে সৌরভের শিখা জাগলো বসন্তে।আজ সেই ছবি ধরা পড়লো আমাদের ক্যামেরায় ।সারেঙ্গা প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষণ প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে বসন্ত উৎসবে মাতলো ছাত্র-ছাত্রী থেকে এলাকা বাসী ।

Advertisement

 

এইদিন প্রতিষ্টান থেকে পায়ে হেঁটে সারেঙ্গা বাজার পরিক্রমা করে সারেঙ্গা চৌরাস্তা মোড় ও সারেঙ্গা মিশন ময়দানে বসন্ত উৎসবের গান ও

Advertisement

নিত্য করে অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে বসন্ত উৎসব কে বরণ করে নেয় ছাত্র-ছাত্রীরা । এই অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন সারেঙ্গা প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষণ প্রতিষ্টানের অধ্যক্ষ সাধন কুমার মহান্তি,সারেঙ্গা থানার আই, সি , সুজিত কুমার ভট্টাচার্য্য, সমাজ সেবী সুব্রত মিশ্র, তারাশঙ্কর মহাপাত্র, ডা:অরুণ কুমার ভট্টাচার্য্য, ধীরেন্দ্রনাথ ঘোষ সহ বিশিষ্ট জনেরা ।এই বসন্ত উৎসব সম্বন্ধে সারেঙ্গা প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষান প্রতিষ্টানের অধ্যক্ষ সংবাদ মাধ্যমের মুখ-মুখি হয়ে জানান যে এই বসন্ত উৎসব করার একটাই লক্ষ আমাদের যে সুন্দর একটা রুচির দিকে নিয়ে যাওয়া রবীন্দ্র ভাবনায় ,রবীন্দ্রনাথ যে ভাবনায় মাধ্যমে বসন্ত উৎসব উদযাপন করেছিলেন সেই ভাবনাকে মাথায় রেখে আমরা এগিয়ে যাবার জন্য আগামী দিনের যারা শিক্ষক তাদের কে এগিয়ে যাবার প্রচেষ্টা এই বসন্ত উৎসব ।

 

Advertisement

কোভিড পরিস্থিতিতে যে জড়তা গ্রাস করেছিল যে রিক্ততা গ্রাস করেছে সেই রিক্ততা কে মুক্ত হয়ে যাবার যে সংকল্প করেছি তারই উদ্যেশে এই বসন্ত উৎসব ।এই সব নিয়ে আমাদের পথ চলা এই বসন্ত উৎসব তারই সাক্ষী আমরা ।

Advertisement