২১শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Advertisement

  ‘বর্ণময়’ বসন্ত উৎসব রবীন্দ্র ভারতী সোসাইটিতে

পারিজাত মোল্লা : রবিবার বিকেলে কলকাতার গিরিশ পার্ক সংলগ্ন জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ির রথীন্দ্র মঞ্চে রবীন্দ্র ভারতী সোসাইটির বসন্ত উৎসব পালন হলো ।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

এই বসন্ত উৎসবে রাজ্যের মন্ত্রী থেকে বিচারপতি, আবার উপাচার্য থেকে সদস্য সচিব সহ আইনজীবী – সাংস্কৃতিক শিল্পীরা অংশগ্রহণ করে থাকেন।এদিন বিকেল সাড়ে তিনটেয় সঙ্গীত – নৃত্যযোগে সম্মিলিতভাবে রথীন্দ্র মঞ্চের চারপাশ প্রদক্ষিণ করেন শতাধিক সাংস্কৃতিক শিল্পীরা।রবীন্দ্র ভারতী সোসাইটির বসন্ত উৎসবে আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে ছিলেন রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী শ্রী অরুপ রায়,  জুভেইনাল জাস্টিস এর চেয়ারপার্সন বিচারপতি শাহিদুল্লাহ মুন্সি, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অফ জুরিডিক্যাল সায়েন্স এর উপাচার্য ড: নির্ম্মলকান্তি চক্রবর্তী, প্রখ্যাত আইনজীবী অনিন্দ্য মিত্র, কেসি দাসের কর্ণধার ধীমান দাস, কলকাতা মিউনিসিপ্যাল করপোরেশনের বরো চেয়ারম্যান অনিন্দ্য রাউত, হাইকোর্ট সংবাদদাতা মোল্লা জসিমউদ্দিন প্রমুখ।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

রবীন্দ্র ভারতী সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক সির্দ্ধাথ মুখোপাধ্যায় সবসময় উপস্থিত ছিলেন মঞ্চে।সমগ্র সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন পারমিতা সরকার। এদিন শতাধিক সাংস্কৃতিক শিল্পী বসন্ত উৎসব সূচনালগ্নে  ঠাকুরবাড়ির চারিদিকে রবীন্দ্র সঙ্গীত পরিবেশন করে এবং সমবেত নৃত্য প্রদর্শন করে। ‘আলাপ’  সংগঠনের তরফে আবৃত্তি মন কেড়ে নেয় মঞ্চে আসা তিন শতাধিক সাংস্কৃতিকপ্রেমীদের। রবীন্দ্র ভারতী সোসাইটির বসন্ত উৎসবে আসা বিশিষ্ট অতিথিরা বিশ্বকবির হোলির ভাবনায় বসন্ত উৎসব করার প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে বিস্তারিত বর্ণনা দেন।রবীন্দ্র ভারতী সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক সির্দ্ধাথ মুখোপাধ্যায় বলেন -” সারা বছর ধরে আমরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিশ্বকবির ভাবনা ছড়িয়ে দিই”। জানা গেছে খুব তাড়াতাড়ি রবীন্দ্র ভারতী সোসাইটির রথীন্দ্র মঞ্চে রবীন্দ্র নাটক হচ্ছে।

 

Advertisement

 

Advertisement