১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

মাঝ আকাশে দুর্যোগ মুখ্যমন্ত্রীর হেলিকপ্টার

জয়ন্ত বর্মন ,জলপাইগুড়ি :মাঝ আকাশে দুর্যোগ মুখ্যমন্ত্রীর হেলিকপ্টার।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

দুর্ঘটনা এড়াতে জরুরি অবতরণ।

কপ্টার থেকে নামার সময় কোমরে এবং পায়ে চোট পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর বলে জানা গেছে। বাগডোগড়ার দিকে না গিয়ে সেবকের এয়ার বেসে জরুরি অবতরণ করে।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

জলপাইগুড়ির ক্রান্তি থেকে বাগডোগরা যাওয়ার পথেই মাঝ আকাশে দুর্যোগের কবলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হেলিকপ্টার।জানা গেছে আকাশে প্রবল দুর্যোগের মুখে পড়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কপ্টার। সেবক এয়ার বেসে জরুরি অবতরণ করতে হল পাইলটকে। হেলিকপ্টারে সকলেই নিরাপদে রয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

আজ মঙ্গলবার দুপুরে ক্রান্তিতে সভা সেরে হেলিকপ্টারে বাগডোগরা রওনা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।মাঝ আকাশে প্রবল ঝড়-বৃষ্টির কবলে পড়ে মুখ্যমন্ত্রীর কপ্টার। সেবক এয়ারবেসে জরুরি অবতরণ করা হয় ওই হেলিকপ্টার। দুপুর ১টা নাগাদ সেই সভা শেষ হয়। তার পর জলপাইগুড়ির ক্রান্তি থেকে হেলিকপ্টারে রওনা দেন মমতা। হেলিকপ্টারে বাগডোগরা পৌঁছে সেখান থেকে বিমানে কলকাতা ফেরার কথা ছিল। মাঝ আকাশে দুর্যোগ দেখা দেয়। ক্রান্তি থেকে বাগডোগরা কপ্টারে যেতে সময় লাগার কথা ছিল ১৩ মিনিট।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

এমনিতেই উত্তরবঙ্গে প্রবল বৃষ্টি কখনো ভালো ওয়েদার কখনো খারাপ। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী কয়েকদিনে বৃষ্টি বাড়বে। আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ও জলপাইগুড়িতে ২৮ তারিখ থেকে ভারী বৃষ্টির অ্যালার্ট জারি করেছে হাওয়া অফিস। জরুরি অবতরণের পর ওই এয়ারবেসের কর্মকর্তারা মুখ্যমন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীদের নিরাপদে সেনা কার্যালয়ে নিয়ে যান। খ্যমন্ত্রীর জন্য শালুগাড়া সেনা কার্যালয়ে গাড়ি পাঠানো হয়েছে। সেই গাড়িতেই মুখ্যমন্ত্রীর বাগডোগরা বিমানবন্দরে যাওয়ার কথা। সেখান থেকে বিমানে কলকাতায় ফেরার কথা তাঁর।

Advertisement