১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Advertisement

নজরুল-ভূপেনের বাংলা-অসম মৈত্রী

নূতন ভোরের প্রতিবেদন :সারা দেশে যখন বিভাজনের উচ্চকিত হুঙ্কার, তখন মৈত্রীর বার্তা উচ্চারিত হল গৌহাটির প্রেস ক্লাবে। বাংলা-অসমের মাঝে বন্ধুত্ব বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১১ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখে প্রকাশিত হল দুটি ঐতিহাসিক গ্রন্থ। কলকাতার সেন্ট পলস ক্যাথিড্রাল মিশন কলেজের এবং অসমের নর্থ লখিমপুর কলেজের যৌথ উদ্যোগে প্রকাশিত হল ড. রেজাউল করিমের গ্রন্থ “বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম: সৃষ্টি আরু স্রষ্টা।” এই গ্রন্থটির কাজী নজরুল ইসলামের সাহিত্যের অসমীয়া অনুবাদ। বিদ্রোহী কবির ৩২ টি কবিতা, ৩ টি গল্প, ৫ টি প্রবন্ধের অনুবাদসহ রয়েছে কবির জীবনী। প্রখ্যাত কবি নবকান্ত বড়য়ার পরে এটিই অসমীয়া ভাষায় বিদ্রোহী কবির দ্বিতীয় অনুবাদ গ্রন্থ। গ্রন্থটির উন্মোচন করেন বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক ও বুদ্ধিজীবী ময়ূর বরা।
এরই সঙ্গে প্রকাশিত হল ড. শেখ মকবুল ইসলামের লেখা বাংলা গ্রন্থ “ভূপেন হাজরিকা: বিশ্বসংস্কৃতির কণ্ঠস্বর”। গবেষণা মূলক এই গ্রন্থে ড. ইসলাম ভূপেন হাজরিকা ও বাংলার আবেগ সম্পর্কের কথা বলেছেন। এরই পাশাপাশি বাংলা গানে ভূপেন হাজরিকার স্থান নির্ণয় করেছেন। এই গ্রন্থের উন্মোচন করেন গৌহাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশিষ্ট অধ্যাপক দিলীপ বরা। উক্ত অনুষ্ঠানে ‘উদ্বোধনী ভাষণ’ প্রদান করেন কলকাতার সেন্ট পলস্ কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান ড. শেখ মকবুল ইসলাম।
এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, অধ্যাপক আব্দুল মান্নান, রণজিৎ সূত্রধর, দিলীপ চন্দন, অঞ্জনাভ চলিহা, শেখ আব্দুর রহিম, মেহেদী আলম বরা, খন্দকার ইমরান হুসেন, পুলিন কলিতা, রিপুঞ্জয় গাগৈ , ড. বিজয় চৌধুরী, বিজয় গাগৈ, দন্ডেশ্বর ডেকা, সাহাজাহান তালুকদার, হেমন্ত শইকিয়া, ড. পৈনুরুদ্দিন আহমদ, ইন্দ্রজিৎ দত্ত, জমসের আলি, অপূর্ব শর্মা , বিভা দাস, বীণা দেবী, প্রাণামী গোস্বামী, বিপুল শর্মা , সমদ্দর হুসেন, শুলাম জাফর, আতাউর রহমান প্রমুখ।
নর্থ লোখিম পুর কলেজের ড. অরবিন্দ রাজখোয়া টেলিফোনে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন – “সেন্ট পলস্ কলেজের সঙ্গে আমাদের মৈত্রী-চুক্তি কেবল কাগুজে বিষয় নয়, গবেষণার ক্ষেত্রে আমাদের কর্মধারা বাস্তবায়িত হচ্ছে– এই দুটি গ্রন্থ তারই নমুনা”।
উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ বলেন, “নজরুল ইসলামকে অসমে পরিচিত করানোর জন্য রেজাউল করিমকে ধন্যবাদ জানাই। ভূপেন হাজরিকা আমাদের প্রাণের মানুষ। উদার আকাশ প্রত্রিকায় আমরা ভূপেন হাজরিকার সম্বর্ধনা মূলক প্রবন্ধ প্রকাশ করেছিলাম “।

Advertisement