৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর কোঁদলে প্রচার না করেই ফিরতে হল প্রার্থীকে

নিজস্ব সংবাদদাতা, বর্ধমান, ২৩ মার্চ – প্রচারের কর্তৃত্ব কার হাতে থাকবে এই নিয়ে বর্ধমান পূর্বের তৃণমূল প্রার্থী শর্মিলা সরকারের উপস্থিতিতেই মেমারীর বিধায়ক ও ব্লক সভাপতির অনুগামীদের মধ্যে প্রবল গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ালো। দুই পক্ষের অনুগামীদের ধ্বস্তাধস্তিতে কার্যত প্রচার না করেই ফিরতে হলো প্রার্থীকে। শনিবার সকালে মেমারীর গন্তার এলাকার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমত দুই গোষ্ঠীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়েছে। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের মুখে খোদ শাসকদলের মধ্যে এই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকট হওয়ায় অস্বস্তিতে পড়েছে ঘাসফুল শিবির।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

জানা গেছে, পূর্ব নির্ধারিত প্রচার কর্মসূচী অনুযায়ী শনিবার সকালে মেমারীর গন্তার এলাকায় প্রচারে আসেন বর্ধমান পূর্বের তৃণমূল প্রার্থী শর্মিলা সরকার।সেখানে মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করার সঙ্গে সঙ্গেই মেমারীর বিধায়ক মধুসূদন ভট্টাচার্য ও মেমারী ১ ব্লকের তৃণমূল সভাপতি তথা জেলা পরিষদের বন ও ভূমি কর্মাধ্যক্ষ নিতাই বন্দোপাধ্যায়ের অনুগামীরা প্রচারের কর্তৃত্ব কার হাতে থাকবে তা নিয়ে ধ্বস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পরেন। এরপরই কার্যত প্রচার না করেই এলাকা ছাড়তে হয় প্রার্থীকে। যদিও শর্মিলা সরকার গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কথা কার্যত অস্বীকার করেছেন।

Advertisement