১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Advertisement

সরকারি স্কুলে চাকরি হারানো শিক্ষকদের নিয়ে বৈঠক করে বিতর্কের মুখে জেলা তৃণমূল সভাপতি…

সনাতন গড়াই ,পশ্চিম বর্ধমান : রবিবার দুর্গাপুরে সরকারি নেপালি পাড়া হিন্দি হাই স্কুলে পশ্চিম বর্ধমান জেলার ৫৪৩ জন চাকরিহারা দের নিয়ে আইনি সহায়তা দেওয়ার জন্য একটি আলোচনা সভার আয়োজন করে তৃণমূল পরিচালিত মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি। যেখানে এই চাকরি হারাদের পাশে দাঁড়িয়ে আইনি সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দেন শাসক দলের শিক্ষক সংগঠনের নেতৃত্বরা। এই আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক তথা তৃণমূলের জেলা সভাপতি নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীও। আলোচনা শেষে, বিধায়ক নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী কথা বলেন চাকরিহারাদের সাথে।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

তারপরেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন,”এখন তো এমন অবস্থা হয়েছে অনেক বিচারক ভাবছেন মানুষকে উত্তক্ত্য করে বিজেপির পদলেহন করে তমলুকে দাঁড়ানো যায়। তেমনি অনেকে ভাবছেন রাজ্যপাল হবেন রাজ্যসভার সাংসদ হবেন। যে মানুষগুলো পরীক্ষা দিয়ে পাস করে চাকরি পেয়েছিল আদালত তাদের বেছে দিয়েছিল তাদেরকে এভাবে উত্ত্যক্ত করা সন্ত্রস্ত করা মনে হয় না সমাজের প্রতি ভালো বার্তা দিয়েছে।” নির্বাচনের অবহে কিভাবে নির্বাচনবিধি লঙ্ঘন করে সরকারি স্কুলের ভেতর চাকরিহারা শিক্ষক-শিক্ষিকাদের নিয়ে আলোচনা করতে পারে তৃণমূল এই অভিযোগ তুলে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করার হুঁশিয়ারি বিজেপির।

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

দুর্গাপুর পশ্চিমের বিজেপি বিধায়ক লক্ষণ ঘরুই বলেন,”তৃণমূল হার নিশ্চিত বুঝে আদালতের নির্দেশে যাদের চাকরি গেছে তাদের চাকরি ফিরিয়ে দেওয়ার কথা বলছে। এই কাজ তৃণমূল করতে পারেন না। নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানানো হবে বলেও জানান তিনি।”পশ্চিম বর্ধমান জেলার তৃণমূল মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি নুরুল হক বলেন,”বিজেপি কি বলল তাতে তাদের যায় আসে না।যারা যোগ্য তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে সুবিচারের জন্য পশ্চিম বর্ধমান তৃণমূল মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি। তাঁরা প্রতি মুহূর্তেই মানুষের পাশেই থাকেন।”

Advertisement