৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Advertisement

জাতীয় স্বার্থবিরোধী প্রোপাগান্ডা ছড়ানোর অভিযোগে বেশকিছু ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করল কেন্দ্রীয় সরকার

মনোজিৎ বসু : দেশের জাতীয় নিরাপত্তায় বিঘ্ন ঘটিয়ে নিজেদের ব্যক্তিগত প্রোপাগান্ডা ছড়ানোর অভিযোগে বেশকিছু ইউটিউব চ্যানেল কে বন্ধ করে দিলো কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

এই বন্ধ হবার চ্যানেল গুলির মধ্যে বেশকিছু খবরের চ্যানেল ও রয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরেই তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক লক্ষ্য করছিল দেশের বেশ কিছু ইউটিউব চ্যানেল, ফেসবুক একাউন্ট, এবং টুইটার একাউন্ট ভারতের সম্প্রচার সম্পর্কিত নির্দিষ্ট আইন কে সম্পূর্ণ বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এমন কিছু সংবাদ পরিবেশন করছিল যা একদিকে যেমন মানুষের মনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছিল তেমনি অন্যদিকে দেশের নিরাপত্তা ও বৈদেশিক নীতি কে সম্পূর্ণ ভাবে আঘাত করছিল।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

বলা বাহুল্য এর মধ্যে কয়েকটি পাকিস্তানি গ্রুপ পরিচালিত চ্যানেল ও রয়েছে। এই পদক্ষেপ সম্পর্কে মন্ত্রকের আধিকারিকদের বক্তব্য দীর্ঘদিন ধরে তারা লক্ষ্য করছিলেন কিছু অনলাইন প্লাটফর্ম ভারতীয় টিভি চ্যানেলের লোগো এবং থাম্বনেল ব্যবহার টিভি চ্যানেলের লোগো এবং টেমপ্লেট ব্যবহার করে মানুষকে বিভ্রান্ত করছিল এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় এই থাম্বনেল এবং শিরোনাম পাল্টে ভুয়া খবর কে সত্যি বলে দেখাচ্ছিলো।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

এ বিষয়ে বারবার তাদের সতর্ক করা হলেও তারা তা বন্ধ না করায় মঞ্চ থেকে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হলো। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য 2021 সালের ডিসেম্বর মাসেও দেশ বিরোধী কার্যকলাপের জন্য 78 টি ইউটিউব চ্যানেল কে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। দেশের নিরাপত্তার স্বার্থে এবারও সেই একই ব্যবস্থা গ্রহণ করল মন্ত্রক।

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

 

Advertisement

 

তথ্য আইন অনুযায়ী এই পদক্ষেপকে অনেকেই বাক স্বাধীনতার অধিকারে হস্তক্ষেপ বলে আওয়াজ তুললেও তথ্য ও সম্প্রচার মঞ্চকে করা দাবি আগামী দিনে এই ধরনের পদক্ষেপ আবার গ্রহণ করা হবে। কোন ভাবেই জাতীয় স্বার্থবিরোধী পদক্ষেপ কে প্রশ্রয় দেওয়া হবে না।(সৌজন্যে : সাইবারক্রাইম সচেতনতা ,পূর্ব বর্ধমান)

Advertisement